রবিবার, এপ্রিল 21, 2024
রবিবার, এপ্রিল 21, 2024

HomeFact CheckFact Check: ভারতীয় নৌবাহিনী কতৃক এমভি আব্দুল্লাহ জাহাজ উদ্ধারের ভাইরাল দাবিটি মিথ্যা

Fact Check: ভারতীয় নৌবাহিনী কতৃক এমভি আব্দুল্লাহ জাহাজ উদ্ধারের ভাইরাল দাবিটি মিথ্যা

Claim
ভারতীয় নৌবাহিনী বাংলাদেশি জাহাজ এমভি আব্দুল্লাহ জাহাজ সোমালি জলদস্যুদের হাত থেকে উদ্ধার করেছে 
Fact
উদ্ধারকৃত জাহাজটি বাংলাদেশি এমভি আব্দুল্লাহ নয় বরং মাল্টার পতাকাবাহী জাহাজ এমভি রুয়েনকে গত ১৬ মার্চ উদ্ধার করে ভারতীয় নৌবাহিনী

মোজাম্বিক থেকে ৫৫ হাজার টন কয়লা নিয়ে আরব আমিরাত যাওয়ার পথে গত মঙ্গলবার ভারত মহাসাগরের সোমালি জলদস্যুদের কবলে পড়ে এমভি আবদুল্লাহ। জলদস্যুরা জাহাজটির নিয়ন্ত্রণ নিয়ে ২৩ নাবিকের সবাইকে জিম্মি করে নেয় সোমালি জলদস্যুরা। এরই ধারাবাহিকথায় সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টিকটকে এমভি আব্দুল্লাহকে উদ্ধার করেছে ভারতীয় নৌবাহিনী দাবিতে একটি তথ্য প্রচার করা হয়। প্রচারিত এমন কিছু ভিডিওটি দেখুন এখানে এবং এখানে। 

নৌবাহিনী

নিউজচেকার-বাংলাদেশ যাচাই করে দেখেছে দাবিটি মিথ্যা।

Fact-Check/Verification

দাবিটির সত্যতা যাচাই করতে একাধিক কীওয়ার্ড সার্চের মাধ্যম দেশীয় কিংবা আন্তর্জাতিক কোনো সংবাদমাধ্যমে এমভি আব্দুল্লাহর উদ্ধার সম্পর্কিত কোনো খবর খুঁজে পাওয়া যায়নি। 

পরবর্তীতে, বিডিনিউজ২৪ এ “৪০ ঘণ্টার রুদ্ধশ্বাস অভিযানে কাবু জলদস্যুরা, উদ্ধার এমভি ‘রুয়েন’” শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। 

Screenshot taken from Bdnews24 website

প্রতিবেদন হতে জানা যায়, সোমালি উপকূলে তিন মাস আগে জলদস্যুদের ছিনিয়ে নেওয়া পণ্যবাহী জাহাজ এমভি রুয়েন উদ্ধারে ৪০ ঘণ্টার রুদ্ধশ্বাস অভিযান সফলভাবে শেষ করেছে ভারতীয় নৌবাহিনী; আরব সাগরে দুস্যদের আটকের পাশাপাশি মুক্ত করেছে জিম্মি নাবিকদের।

Read More: শহীদ মিনারে খালেদা জিয়ার শ্রদ্ধাজ্ঞাপনের ভিডিওটি সাম্প্রতিক নয়

পরবর্তীতে ভারতীয় নৌবাহিনীর অফিশিয়াল এক্স অ্যাকাউন্ট ঘুরে দেখা যায় ১৬ মার্চে করা এমভি রুয়েনের উদ্ধার সম্পর্কিত টুইট রয়েছে। 

এছাড়া, বাংলাদেশি জাহাজ এমভি আব্দুল্লাহকে নিয়ে সর্বশেষ টুইট করা হয় গতকাল শুক্রবার (১৫ মার্চ)। টুইটটিতে ভারতীয় যুদ্ধজাহাজ থেকে তোলা এমভি আবদুল্লাহর মাস্টার ব্রিজের একটি ছবি পোস্ট করা হয়। 

ভারতীয় নৌবাহিনীর টুইটটিতে আরো বলা হয় বাংলাদেশি পতাকাবাহী জাহাজটি দস্যুদের কবলে পড়ার তথ্য পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ১২ মার্চ সেটির অবস্থান শনাক্ত করা হয়। জাহাজটির ক্রুদের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হয় তবে জিম্মি জাহাজ থেকে কোনো সাড়া মেলেনি। একই তথ্য পাওয়া যাচ্ছে ম্যারিটাইম ট্রাফিক মনিটরিং ওয়েবসাইট ম্যারিনট্রাফিক ডট কমেও, দেখুন এখানে

উল্লেখ্য, ইউরোপীয় মেরিটাইম ফোর্সে এবং ভারতীয় নৌবাহিনী সোমালি জলদস্যুরা এমভি আবদুল্লাহকে হাইজ্যাক করার পর ক্রু সদস্যদের জন্য উদ্ধার অভিযান শুরু করার অনুমতি চেয়েছিল কিন্তু বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এধরণের হস্তক্ষেপের বিরুদ্ধে সিদ্ধান্ত নেয়।

Conclusion 

ভারতীয় নৌবাহিনী কতৃক বাংলাদেশি জিম্মি হওয়া জাহাজ এমভি আব্দুল্লাহ উদ্ধার হয়েছে দাবিতে একটি তথ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে ছড়িয়ে পরে যা মিথ্যা। 

Result: False

Our Sources 
Jugantor 
Bdnews24
Indian Navy Official Twitter
Indian Navy Official Tweet
TBS News
MV Abdullah Marine Traffic


সন্দেহজনক কোনো খবর ও তথ্য সম্পর্কে আপনার প্রতিক্রিয়া জানাতে অথবা সত্যতা জানতে আমাদের লিখে পাঠান checkthis@newschecker.in অথবা whatsapp করুন- 9999499044 এই নম্বরে। আমাদের WhatsApp চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন এখানে ক্লিক করে।এছাড়াও আমাদের সাথে Contact Us -র মাধ্যমে যোগাযোগ করতে পারেন ও ফর্ম ভরতে পারেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular