রবিবার, অক্টোবর 2, 2022
রবিবার, অক্টোবর 2, 2022

HomeFact Checkনা, ইউটিউব "বন্ধ" হচ্ছে না

না, ইউটিউব “বন্ধ” হচ্ছে না

সম্প্রতি, বিনোদনমূলক সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম টিকটকে একটি ভাইরাল  ভিডিও দাবি করছে যে, অনলাইন ভিডিও শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম ইউটিউব ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২২ থেকে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে।

ভাইরাল টিকটক ভিডিওটি দাবি করেছে যে, ইউটিউব “আজ থেকে” বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। ভিডিওটি একটি সময়টিভিতে প্রচারিত একটি সংবাদ, যেখানে কম্পিউটার সার্ভার এবং অফিসের সেটিংয়ে তাদের কর্মীরা কম্পিউটারে কাজ করছে এমন দৃশ্য দেখা যায়। 

টিকটক ভিডিওটি অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে ২৫৪ বার শেয়ার করা হয় এবং ইতিমধ্যেই ২৭.৫ হাজার ব্যবহারকারী পছন্দ করেছে।

Fact Check/ Verification

এই ভিডিওটি সম্পর্কে আরও জানার জন্য, আমরা বাংলায় “Somoy Tv (সময় টিভি), “ইউটিউব (ইউটিউব),” এবং “গুগল, ফেসবুক ক্যাশ সার্ভার (গুগল, ফেসবুক))” শব্দ ব্যবহার করে গুগলে একটি কীওয়ার্ড অনুসন্ধান করেছি। এটি আমাদেরকে ৩১ ডিসেম্বর, ২০২১ তারিখে সময় টিভি তাদের অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশিত মূল ভিডিও ক্লিপের সন্ধান দেয়। এতে ক্যাপশন ছিল “গুগল, ফেসবুক এবং ইউটিউব সহ বিভিন্ন সংস্থার ক্যাশে সার্ভার বন্ধ করা হচ্ছে!”।

একটি ক্যাশে সার্ভার কি?

একটি ক্যাশে সার্ভার একটি ডেডিকেটেড সার্ভার যা স্থানীয়ভাবে ওয়েব সামগ্রী এবং অন্যান্য ইন্টারনেট সামগ্রী সংরক্ষণ করে। অস্থায়ী স্টোরেজ বা ক্যাশে পূর্বে অনুরোধ করা তথ্য স্থাপন করে, একটি ক্যাশে সার্ভার উভয়ই ডেটা অ্যাক্সেসের গতি বাড়ায় এবং একটি এন্টারপ্রাইজের ব্যান্ডউইথের চাহিদা হ্রাস করে।

M2SYS প্রযুক্তির সিনিয়র সিস্টেম অ্যাডমিনিস্ট্রেটর এএম মহিউদ্দিন রাজীব নিউজচেকারকে বলেন, “পৃথিবীর যেকোনো স্থান থেকে কোনো ব্যক্তি যদি কোনো ইন্টারনেট রিসোর্স অনুসন্ধান করে বা ব্রাউজ করে, তাহলে এটি বিভিন্ন ইন্টারনেট পরিষেবা প্রদানকারীর (ISP) স্থানীয় স্টোরেজে বা কোনো ভেন্ডর-নির্দিষ্ট ক্যাশে ক্যাশ করবে ইউটিউবের মত সার্ভার। এরপরে, যখন কেউ দেশে বা ভূ-অবস্থান থেকে অনুসন্ধান করে একই সংস্থান অনুসন্ধান করে ফলাফলটি খুব দ্রুত আসে। ফলাফল, একটি ওয়েব পৃষ্ঠার মত, ছবি, গান, ভিডিও বা মিডিয়া ফাইলগুলি আগের চেয়ে দ্রুত আসে কারণ এটি দেশের অভ্যন্তরীণ নেটওয়ার্ক থেকে আসে, সরাসরি ফাইলটি নির্মাতার স্থান থেকে নয়। ক্যাশে সার্ভারগুলি ব্যবহারকারীদের ‘রিচ মিডিয়া ফাইল বা অন্যান্য নথি সহ’ অফলাইনে ফাইলটি অ্যাক্সেস করার অনুমতি দেয়৷”

ইউটিউব এবং ক্যাশে সার্ভারের মধ্যে সম্পর্ক কী?

ইউটিউব হলো, একটি ক্লাউড কোম্পানি যা তাদের নিজস্ব স্টোরেজে ভিডিও তৈরি এবং আপলোড করার সুযোগ দেয়। লোকেরা যখন “youtube.com” থেকে কোনও ভিডিও ব্রাউজ করে বা দেখে, ভিডিওটি ইতিমধ্যেই আপলোড করা হয় এবং দেখার জন্য প্রস্তুত থাকে৷

রাজীব আরও ব্যাখ্যা করেছেন যে ক্যাশে সার্ভারগুলি স্ট্যাটিক ডেটা যেমন ইমেজ, ভিডিওগুলি সঞ্চয় করে যা প্রায়শই পরিবর্তিত হয় না এবং একই দেশে অবস্থিত কোম্পানির স্থানীয় ক্যাশে সার্ভারে ইউটিউব ভিডিও সংরক্ষণ করে। তিনি বলেন, “এর মানে যদি দ্বিতীয় ব্যক্তি ইউটিউবে কন্টেন্ট দেখার অনুরোধ করেন। এটি প্রথম দর্শকের চেয়ে দ্রুত লোড হবে। যদি কোনো স্থানীয় ইউটিউব ক্যাশে সার্ভার না থাকে, তবে ব্যবহারকারী এখনও বিষয়বস্তু দেখতে পারবেন কিন্তু গতি হবে প্রথম দর্শকের লোডিং সময়ের সমান বা ধীর। কারণ সেই সময় সেই দেশের প্রত্যেক ব্যবহারকারী সরাসরি ইউটিউবের সার্ভার থেকে ঐ ভিডিওটি দেখার জন্য অনুরোধ করেছেন।  যার একটি অনুরোধ সীমা বা ব্যান্ডউইথ ইনবাউন্ড-আউটবাউন্ড সীমা থাকতে পারে।”

ক্যাশে সার্ভার বন্ধ করা হলে কি হবে?

“যদি ইউটিউবের ক্যাশে সার্ভারগুলি ডাউন থাকে, ব্যবহারকারীরা এখনও ইউটিউবের যেকোনো ধরনের ভিডিও দেখতে বা উপভোগ করতে পারেন, তবে বর্তমান গতির চেয়ে ধীর,” ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর মোবাইল ডেটার জন্য বাফারিং সমস্যা, উচ্চ রেজোলিউশন এবং উচ্চ ইন্টারনেট খরচের মতো প্রভাবগুলি ব্যাখ্যা করার সময় বলেছিলেন এএম মহিউদ্দিন রাজীব। 

বাংলাদেশ কেন এই পদক্ষেপ নিল?

ফাইন্যান্সিয়াল এক্সপ্রেস (Financial Express) রিপোর্ট করেছে যে বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন রেগুলেটরি কমিশন (BTRC) বলেছে “গুগল, ফেসবুক এবং ইউটিউবের মতো বিশ্বব্যাপী ইন্টারনেট কোম্পানিগুলো সরকারের কোনো অনুমোদন ছাড়াই স্থানীয় এজেন্টদের মাধ্যমে বাংলাদেশে ‘প্রাইভেট ক্যাশে সার্ভার’ স্থাপন করেছে” – এবং এটি হতে পারে দেশের জাতীয় নিরাপত্তার জন্য হুমকি।”

মিডিয়া দ্বারা ব্যাপকভাবে রিপোর্ট করা হয়েছে যে গুগল, ইউটিউব এবং ফেসবুক ব্যবহারকারীদের প্রদত্ত টাইমলাইনে স্থানান্তরিত না হওয়া ক্যাশে সার্ভারগুলি বন্ধ করার ফলে ইন্টারনেটের গতি ধীর হতে পারে। বিস্তারিত জানিয়েছে বিবিসি নিউজ বাংলাপ্রথম আলো

সিটিজেন চার্টারটি শেষবার ২৮ নভেম্বর, ২০২১ তারিখে সংশোধন করা হয়েছিল, বিটিআরসি দ্বারা প্রদত্ত পরিষেবা, প্রয়োজনীয় নথি, পরিষেবার বিরুদ্ধে আর্থিক চার্জ, টাইমলাইন এবং যোগাযোগের জন্য দায়ী ব্যক্তি ব্যাখ্যা করে।

২৩ ফেব্রুয়ারি থেকে নাগরিক সনদ এবং বিটিআরসিতে ইউটিউব বন্ধ হওয়ার কোনও নির্দিষ্ট উল্লেখ নেই।

সময় টিভির প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে যে জাতীয় নিরাপত্তা রক্ষার জন্য, বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন রেগুলেটরি কমিশন (বিটিআরসি) বলেছে যে শুধুমাত্র নির্দিষ্ট অপারেটরের কাছে ক্যাশে সার্ভারের অনুমতি থাকবে, সেইসাথে তালিকাভুক্ত ক্যাশে সার্ভারগুলিকে ক্যাশে সার্ভার স্থানান্তর করার সুযোগ দেওয়া হয়েছে।

Conclusion:

ইউটিউব বন্ধ হচ্ছে বলে ভাইরাল দাবি বিভ্রান্তিকর। নিউজচেকারদের তদন্তে দেখা গেছে যে, ব্যবহারকারীদের ডিভাইসে ভিডিওটি যে গতিতে লোড হবে তা ধীর হতে পারে।

Result: False

Our Sources

Tiktok:https://www.tiktok.com/@scsagorroyor/video/7067563805621980443

Youtube: https://www.youtube.com/watch?v=wrh1hgn6XMs

News Playlist by Somoy Tv: https://www.youtube.com/watch?v=hBiLMTDiw3Y&list=PLFv6mvxs9kPMBKRFYRqvsRsr5uLXqviNr&index=53

The Financial Express:

https://thefinancialexpress.com.bd/national/internet-speed-to-be-slower-price-costlier-in-bangladesh-1641788240

Bangla Tribune: https://www.banglatribune.com/tech-and-gadget/tech-news/685993/%E0%A6%9C%E0%A6%BE%E0%A6%A4%E0%A7%80%E0%A7%9F-%E0%A6%A8%E0%A6%BF%E0%A6%B0%E0%A6%BE%E0%A6%AA%E0%A6%A4%E0%A7%8D%E0%A6%A4%E0%A6%BE%E0%A6%B0-%E0%A6%B8%E0%A7%8D%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A7%8D%E0%A6%A5%E0%A7%87%C2%A0%E2%80%98%E0%A6%95%E0%A7%8D%E0%A6%AF%E0%A6%BE%E0%A6%B6

Prothom Alo: https://www.prothomalo.com/bangladesh/%E0%A6%87%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%9F%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A6%A8%E0%A7%87%E0%A6%9F-%E0%A6%A8%E0%A6%BF%E0%A7%9F%E0%A7%87-%E0%A6%8F%E0%A6%87-%E0%A6%A8%E0%A6%A4%E0%A7%81%E0%A6%A8-%E0%A6%B8%E0%A6%BF%E0%A6%A6%E0%A7%8D%E0%A6%A7%E0%A6%BE%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%A4%E0%A6%97%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%BE%E0%A6%B9%E0%A6%95%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%93%E0%A6%AA%E0%A6%B0-%E0%A6%95%E0%A7%80-%E0%A6%AA%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%AD%E0%A6%BE%E0%A6%AC-%E0%A6%AB%E0%A7%87%E0%A6%B2%E0%A6%AC%E0%A7%87

BBC News Bangla: https://www.bbc.com/bengali/news-59835079


সন্দেহজনক কোনো খবর ও তথ্য সম্পর্কে আপনার প্রতিক্রিয়া জানাতে অথবা সত্যতা জানতে আমাদের লিখে পাঠান checkthis@newschecker.in। এছাড়াও আমাদের সাথে Contact Us – ফর্মের মাধ্যমে যোগাযোগ করতে পারেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular