রবিবার, এপ্রিল 21, 2024
রবিবার, এপ্রিল 21, 2024

HomeFact CheckFact check: কোনো মার্কিন চাপ নয়, তত্ত্বাবধায়ক সরকার এখনো মেনে নেয় নি...

Fact check: কোনো মার্কিন চাপ নয়, তত্ত্বাবধায়ক সরকার এখনো মেনে নেয় নি আওয়ামী লিগ 

Claim- মার্কিন দূতাবাসে আওয়ামী লীগের সাথে পিটার ডি হাসের সাক্ষাতে তত্ত্বাবধায়ক ব্যবস্থা দিতে রাজি হয় আওয়ামী লিগ । 

Fact- তত্ত্বাবধায়ক সরকার ফিরিয়ে আনার কোন সুযোগ নেই বলে পিটার হাসকে জানান ওবায়দুল কাদের।

‘যুক্তরাষ্ট্রের চাপে তত্ত্বাবধায়ক সরকার মেনে নিতে বাধ্য হয়েছে হাসিনা সরকার,’ দাবিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টিকটকে একটি পোস্ট ভাইরাল হয়। পোস্টটি দেখুন এখানে- টিকটক। 

পোস্টটির একটি স্ক্রিনশট দেখুন এখানে-

নিউজচেকার-বাংলাদেশ দাবিটির সত্যতা যাচাই করে দেখেছে যে দাবিটি মিথ্যা। 

Fact check/ Verification

গুগল কি-ওয়ার্ড সার্চ এর সাহায্যে দাবিটির বৈধতা যাচাই করতে গিয়ে নিউজচেকার-বাংলাদেশ দেখেছে যে সংশ্লিষ্ট দাবিটি সত্য নয়। 

গত ২২শে মার্চ যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাসে আওয়ামী লিগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের সহ দলের অন্যান্য নেতারা বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত পিটার হাস এর সাথে সাক্ষাৎ করেন। ইউএস এম্বাসি ঢাকা’র অফিসিয়াল ফেসবুক পেইজে একটি পোস্ট দেখা যায়। দেখুন এখানে- ফেসবুক। 

এই সাক্ষাৎ এর ঘটনাকে কেন্দ্র করে টিকটকের উক্ত পোস্টে দাবি করা হয় মানবাধিকার লঙ্ঘনের কারণে  যুক্তরাষ্ট্রের চিঠিতে আওয়ামী লিগের গলায় চাপ পড়েছে। তাদেরকে বাধ্যতামূলক দেখা করতে দূতাবাসে ডাকা হয় এবং বর্তমান সরকারকে তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা পুনরায় ফিরিয়ে আনতে বাধ্য করা হয়। উক্ত পোস্টে ব্যবহৃত ছবিটিও মার্কিন দূতাবাসের ফেসবুক পেইজ থেকে নেয়া হয়েছে। 

আসন্ন জাতীয় নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রসহ বিশ্বের অন্যান্য দেশের নেতারা বাংলাদেশে একটি সুষ্ঠ, অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য সক্রিয়ভাবে আলোচনা ও উদ্বেগ দেখিয়ে আসছে নিয়মিত। এরই জের ধরে ২২ মার্চ ২০২৩, বুধবার আওয়ামী লিগের জ্যেষ্ঠ নেতারা মার্কিন দূতাবাসে গিয়ে নির্বাচন বিষয়ক নান আলোচনা করেন। ইউ এস এম্বাসির ফেসবুক পেইজের পোস্টে বলা হয়, 

রাষ্ট্রদূত হাস মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের সাথে সাক্ষাৎ করেছেন। তিনি বাংলাদেশে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন এবং যুক্তরাষ্ট্র ও বাংলাদেশের মধ্যে বাণিজ্য থেকে শুরু করে দু’দেশের জনগণের মধ্যে সম্পর্ক ও নিরাপত্তা সহযোগিতা পর্যন্ত বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ যৌথ বিষয়ে আলোচনা করেন।

Ambassador Haas met with Minister Obaidul Quader, Awami League General Secretary, and discussed free and fair elections in Bangladesh and the range of important work the United States and Bangladesh share, from trade, to people-to-people ties, to security cooperation.

এছাড়াও এই বিষয়ে মূল ধারার গণমাধ্যমগুলোতে কোন প্রকারের প্রতিবেদন পাওয়া যায় নি। বিভিন্ন গণমাধ্যমে এই সংক্রান্ত প্রতিবেদন দেখুন এখানে-  প্রথম আলো, নয়া দিগন্ত, বাংলানিউজ২৪। 

এসব প্রতিবেদনের মতে আওয়ামী লিগের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক, পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী জনাব ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের বলেন, ‘আজকে আমেরিকান অ্যাম্বাসিতে গিয়েছিলাম। আজকে আমেরিকান অ্যাম্বাসেডরকে আমরা বলে এসেছি, ইট ইজ নট পসিবল টু রিটার্ন টু সো-কল্ড কেয়ারটেকার গভর্নমেন্ট অ্যাগেইন।’ 

এর আগে সংবিধানের পঞ্চদশ সংশোধনীতে তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা বাতিল করা হয়। ২০১১ সালের ১০ মে সুপ্রিম কোর্টের রায়েও এই ব্যবস্থা বাতিল করা হয়। প্রতিবেদন দেখুন এখানে- বিবিসি, বাংলানিউজ২৪

 পরবর্তীতে এই পর্যন্ত বর্তমান সরকারের অধীনে দুটি জাতীয় নির্বাচন হয় যথাক্রমে ২০১৪ ও ২০১৮ সালে। ২০১৪ সালের জাতীয় নির্বাচন বিএনপি বর্জন করেছিলো এবং ২০১৮ সালের নির্বাচনে অংশগ্রহণ করলেও বিএনপি তাতে কেবল মাত্র ৭টি আসন পেয়েছিলো। আগামী জাতীয় নির্বাচনে নিরপেক্ষ সরকার তথা তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে ছাড়া বিএনপি কোন নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে না বলে এখনো দাবি করে যাচ্ছে। কিন্তু আওয়ামী লিগ তাদের অবস্থানে অনড় রয়েছে। 

Conclusion

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের চাপে আওয়ামী লিগ সরকার তত্ত্ববাধয়ক ব্যবস্থা মেনে নেয়ার দাবিটি মিথ্যা। বরং, আওয়ামী লিগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের পিটার ডি হাসকে তত্ত্বাবধায়ক ফিরিয়ে আনার সুযোগ নেই বলে এসেছেন বলে মন্তব্য করেন।

Result: False

Our Sources:

নয়াদিগন্ত- https://www.dailynayadiganta.com/first-page/736292/%E

প্রথম আলো-https://www.prothomalo.com/politics/rph6c5gcyo 

বাংলানিউজ২৪- https://www.banglanews24.com/national/news/bd/1079365.details 

ইউএস এম্বাসি ঢাকা- https://www.facebook.com/bangladesh.usembassy/posts/pf

তত্ত্বাবধায়ক বাতিল- বিবিসিবাংলানিউজ২৪


সন্দেহজনক কোনো খবর ও তথ্য সম্পর্কে আপনার প্রতিক্রিয়া জানাতে অথবা সত্যতা জানতে আমাদের লিখে পাঠান checkthis@newschecker.in। এছাড়াও আমাদের সাথে Contact Us – ফর্মের মাধ্যমে যোগাযোগ করতে পারেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular