মঙ্গলবার, মার্চ 5, 2024
মঙ্গলবার, মার্চ 5, 2024

HomeFact CheckFact Check: সিরাজগঞ্জে একই পরিবারের তিনজনের হত্যার ঘটনাটির সঙ্গে সাম্প্রদায়িক সহিংসতার কোনো...

Fact Check: সিরাজগঞ্জে একই পরিবারের তিনজনের হত্যার ঘটনাটির সঙ্গে সাম্প্রদায়িক সহিংসতার কোনো যোগ নেই

Claim
বাংলাদেশে একটি হিন্দু পরিবারের তিন ব্যক্তিকে ইসলামবাদী দ্বারা তাদের বাসায় গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে
Fact
হত্যাকান্ডের ঘটনাটি কোনো সাম্প্রদায়িক সংঘাত কেন্দ্রিক কিংবা মুসলিম কতৃক সংঘটিত ঘটনা নয় বরং নিহতের আপন ভাগ্নে রাজিব ভৌমিক এটি সংঘঠিত করেন। 

গত ৩০শে জানুয়ারি সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলা সদরের একটি বাসা থেকে এক দম্পতি ও তাদের মেয়ের গলাকেটে হত্যা করা লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহতরা হলেন, বিকাশ সরকার (৪৬), তার স্ত্রী স্বর্ণা রানী সরকার (৪২) ও মেয়ে পারমিতা সরকার তুষি (১৫)। এরই মাঝে ভারত এবং বাংলাদেশে একাধিক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে ব্যবহারকারীরা এই হত্যাকান্ডের ঘটনাটিকে সাম্প্রাদায়িক সংঘাতের কারণে করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন। এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে এবং এখানে। 

সিরাজগঞ্জে

নিউজচেকার-বাংলাদেশ যাচাই করে দেখেছে দাবিটি মিথ্যা।

Fact-Check/Verification

বিষয়টির বিস্তারিত সম্পর্কে জানতে আমরা শুরুতে কিওয়ার্ড সার্চ শুরু করি এবং গত ৩০ জানুয়ারিতে জাতীয় দৈনিক বিডিনিউজ ২৪ এ “সিরাজগঞ্জে সন্তানসহ দম্পতি খুনের ঘটনায় মামলা” শিরোনামে প্রকাশিত প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া পাওয়া যায়।

Screenshot taken from BDNEWS24 website

প্রতিবেদন হতে জানা যায়, এই হত্যাকান্ডে নিহত হওয়া স্বর্ণা রানী সরকারের বড় ভাই সুকোমল সাহা বাদী হয়ে অজ্ঞাত আসামিদের বিরুদ্ধে ৩০ জানুয়ারি (মঙ্গলবার) রাতেই তাড়াশ থানায় মামলা করেন। পূর্ব শত্রুতার জের ধরে এ হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়েছে বলে মামলায় উল্লেখ করা হয়। 

পরবর্তীতে, ৩১ জানুয়ারিতে দ্যা ডেইলি স্টারে “ঋণ শোধ করতে না পেরে মামা-মামি-মামাতো বোনকে হত্যা করেন ভাগ্নে” শিরোনামে প্রকাশিত প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। প্রতিবেদন হতে জানা যায়, হত্যার ঘটনায় রাজিব ভৌমিক নামের এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ যিনি নিহত বিকাশ সরকারের আপন ভাগ্নে। 

Screenshot taken from The Daily Star website


প্রতিবেদনে সিরাজগঞ্জের পুলিশ সুপার (এসপি) আরিফুর রহমান জানান, মামার কাছ থেকে নেওয়া ঋণ শোধ করতে না পেরে দায় থেকে মুক্তি পেতে মামা, মামি ও তাদের মেয়েকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছেন বলে পুলিশের কাছে স্বীকার করেছেন রাজিব। 

তাছাড়া, তাড়াশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নজরুল ইসলাম দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, রাজিব তার মামা বিকাশের কাছ থেকে প্রায় ২০ লাখ টাকা ব্যবসার জন্য নেন। অনেক দিন পার হয়ে গেলেও টাকা পরিশোধ করছিলেন না তিনি। ফলে বিভিন্ন সময় টাকা শোধের জন্য তাকে চাপ দিতেন মামা বিকাশ। চাপের ব্যাপারে বিকাশের বোন ও নিজের মায়ের কাছে অভিযোগও করেন রাজিব। কিন্তু মা তাকেই বকাঝকা করেন। ক্ষিপ্ত হয়ে ও ঋণ থেকে মুক্তি পেতে পরিকল্পনা অনুযায়ী শনিবার রাতে রাজিব বিকাশদের বাড়িতে গিয়ে তিন জনকে হত্যা করে ঘর তালাবদ্ধ করে চলে যান। দুইদিন পার হয়ে গেলেও কেউ কোনো খোঁজ না করায় রাজিব নিজেই বিভিন্ন আত্মীয় ও পরিচিতজনদের কাছে ফোন করে মামার খোঁজ নেন। এমনকি নিহতের মোবাইলেও তিনি ফোন করেন রাজিব। 

একই তথ্য খুঁজে পাওয়া যায় অপর জাতীয় দৈনিক প্রথম আলোর প্রকাশিত প্রতিবেদনেও। 

Screenshot taken from Prothom Alo Website

অর্থাৎ, এটি কোনো সাম্প্রদায়িক সংঘাত কিংবা এধরনের কোনো ঘটনা নয়। 

Conclusion 

সিরাজগঞ্জের তাড়াশে আপন ভাগ্নে রাজিব ভৌমিক দ্বারা নির্মমভাবে হত্যাকান্ডের স্বীকার হওয়া মামা এবং তার পুরো পরিবারের ঘটনাটিকে সাম্প্রাদয়িক সংঘাতের থেকে এরূপ হিন্দু পরিবারকে হত্যা করা হয়েছে এমন দাবিতে ভারত এবং বাংলাদেশের কিছু সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের ব্যবহারকারীরা প্রচার করেন। 

Result: False

Our Sources 
BD News 24 
The Daily Star
Prothom Alo 


সন্দেহজনক কোনো খবর ও তথ্য সম্পর্কে আপনার প্রতিক্রিয়া জানাতে অথবা সত্যতা জানতে আমাদের লিখে পাঠান checkthis@newschecker.in অথবা whatsapp করুন- 9999499044 এই নম্বরে। আমাদের WhatsApp চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন এখানে ক্লিক করে।এছাড়াও আমাদের সাথে Contact Us -র মাধ্যমে যোগাযোগ করতে পারেন ও ফর্ম ভরতে পারেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular