শনিবার, মে 25, 2024
শনিবার, মে 25, 2024

HomeFact CheckFact check: ফেইক একাউন্টের বরাতে গণমাধ্যমে অমর্ত্য সেন এর মৃত্যুর গুজব

Fact check: ফেইক একাউন্টের বরাতে গণমাধ্যমে অমর্ত্য সেন এর মৃত্যুর গুজব

Claim-অমর্ত্য সেন মারা গেছেন
Fact-অমর্ত্য সেনের মারা যাওয়ার খবরটি গুজব

‘অমর্ত্য সেন মারা গেছেন’ দাবিতে গতকাল ১০ই অক্টোবর বিভিন্ন দেশি-বিদেশি গণমাধ্যম থেকে শুরু করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে একটি খবর ছড়িয়ে পরে। ফেসবুক, ফেসবুক, ফেসবুক, ফেসবুক। এছাড়াও বিভিন্ন দেশি বিদেশি গণমাধ্যমেও এই খবর প্রকাশ করে। দেখুন এখানে- ইত্তেফাক, বার্তা ২৪, সমকাল,  Deccan Herald, FirstPost, সংবাদ প্রতিদিন

দেশীয় গণমাধ্যমে মৃত্যুর গুজব ছড়ানো স্ক্রিনশট
কার্টেসিঃ ইন্টারনেট
সংবাদ প্রতিদিনের ফেসবুক পেজে অমর্ত্য সেনের মৃত্যুর খবর প্রকাশ
কলকাতা টিভি’র ফেসবুক পেজে অমর্ত্য সেনের মৃত্যুর খবর প্রকাশ
দৈনিক ইত্তেফাকে অমর্ত্য সেনের মৃত্যুর খবর প্রকাশ
দৈনিক বার্তা২৪-এ অমর্ত্য সেনের মৃত্যুর খবর প্রকাশ
দৈনিক সমকালে অমর্ত্য সেনের মৃত্যুর খবর প্রকাশ

নিউজচেকার-বাংলাদেশ যাচাই করে দেখেছে দাবিটি মিথ্যা। 

Factcheck/Verification

নোবেল বিজয়ী অমর্ত্য সেন এর মৃত্যুর খবরটির সত্যতা অনুসন্ধান করতে গিয়ে নিউজচেকার ভারতীয় জার্নালিস্ট  সীমা চিস্তির এক্স একাউন্ট থেকে একটি টুইট খুজে পায়, যেখানে তিনি অমর্ত্য সেনের মৃত্যুর খবরটিকে অসত্য বলে উল্লেখ করেন। অনুসন্ধানে আরও জানা যায় খবরটি মুলত ২০২৩ সালে নোবেল জয়ী ক্লডিয়া গোল্ডিন এর একটি জাল এক্স একাউন্ট থেকে করা একটি টুইট থেকে ছড়িয়ে পরে।

ক্লডিয়া গোল্ডিন-এর জাল একাউন্ট যেখান থেকে মৃত্যুর গুজব প্রথম ছড়ানো হয়
কার্টেসিঃ টুইটার

মুলত গত ১০ই অক্টোবর ক্লডিয়া গোল্ডিন নামের একটি এক্স একাউন্ট থেকে বেলা ১১ঃ১৪ মিনিটে টুইট করে বলা হয়, ‘Terrible News, My dearest Professor Amartya Sen has died minutes ago. No words.’  একই দিনে বিকেল থেকে সন্ধার মধ্যবর্তী সময়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম থেকে শুরু করে বিভিন্ন দেশি বিদেশি গণ মাধ্যমে খবরটি ছড়িয়ে পড়ে। প্রায় প্রতিটি প্রতিবেদনেই উৎস হিসেবে ক্লডিয়া গোল্ডিন এর জাল একাউন্ট-টি উল্লেখ করা হয়। পরবর্তীতে অনুসন্ধান করে জানা যায় ক্লডিয়া গোল্ডিন নামের যে একাউন্ট থেকে অমর্ত্য সেন-এর মৃত্যুর খবরটি টুইট করা হয়েছে তা মুলত ২০২৩ সালের মে মাসে সক্রিয় করা হয়। অপরদিকে অধ্যাপিকা ক্লডিয়া গোল্ডিন এর মুল একাউন্ট এর অস্তিত্ব খুজতে গিয়ে আমরা প্রিন্সটন ইউনিভার্সিটি প্রেস-এর ভেরিফায়েড একটি টুইট-এ ক্লডিয়া গোল্ডিন নামের একটি একাউন্ট খুজে পাই, যেখান থেকে ক্লডিয়া গোল্ডিনকে এ বছর নোবেল পাওয়ার পর অভিনন্দন জানানো হয়েছিলো, একাউন্টটি যাচাই করে দেখা যায় এটি ক্লডিয়া গোল্ডিন এর মুল এক্স একাউন্ট যা ২০১৩ সাল থেকে সক্রিয়। 

প্রিন্সটন ইউনিভার্সিটি প্রেস-এর ক্লডিয়া গোল্ডিন-এর মুল একাউন্টকে ট্যাগ করে দেয়া অভিনন্দন জানানো ট্যাগ
কার্টেসিঃ টুইটার

অমর্ত্য সেনের মৃত্যুর খবরটি নিশ্চিত করার জন্য আমাদের পক্ষ থেকে প্রতিচী ট্রাস্ট(অমর্ত্য সেন ও নন্দনা সেন এর ট্রাস্ট)-এর সাথে যোগাযোগ করা হলে সৌমিক মুখার্জি, প্রধান প্রশাসনিক কর্মকর্তা-প্রতিচী ট্রাস্ট, বলেন, “আমি প্রফেসর সেনের বড়ো মেয়ের সাথে কথা বলে খবরটি জানাই, উনার মেয়ে জানিয়েছেন বাবা পুরোপুরি সুস্থ আছেন, খবরটি ভুয়ো।”

পরবর্তীতে নিউজচেকারের পক্ষ থেকে অমর্ত্য সেন এর মেয়ে অন্তরা সেন-এর সাথে এ বিষয়ে কথা বললে তিনি জানান, তিনি এই মুহুর্তে পিতার সাথে ক্যাম্ব্রিজে অবস্থান করছেন, তার বাবা সুস্থ্য আছেন, মৃত্যুর খবরটি ভুল।

একই সাথে  নন্দনা সেনের, অমর্ত্য সেনের ছোট মেয়ে, এক্স একাউন্ট থেকে একটি টুইট করে জানানো হয় যে বাবার মৃত্যুর খবরটি ভুয়া।

তবে বিখ্যাত ব্যক্তিদের নামে ভুয়া খবর/গুজব ছড়ানোর ব্যপারটি এর আগেও বেশ কয়েকবার হয়েছে। ভিক্টিমদের তালিকায় নাম রয়েছে আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্ট হামিদ কারজাই, প্রেসিডেন্ট মারিও মন্টি, বাশার আল আসাদ সহ আরো অনেকে। আর এসব গুজব ছড়ানোর কারসাজি কেবল একজন ব্যক্তিরই করা। তিনি হলেন ইতালিয়ান নাগরিক Tommaso De Benedetti. দ্যা গার্ডিয়ান-এর এক প্রতিবেদন থেকে জানা যায় যে টমাসো বেশ কয়েক বছর ধরেই এ কাজ করে আসছেন। বিভিন্ন বিখ্যাত ব্যক্তিদের নামে একাউন্ট খুলে ভুল্ভাল টুইট করে বসেন। টমাসো বলেন তিনি এই কাজ করেন মিডিয়ার দুর্বলতা পৃথিবীকে দেখানোর জন্য। 

দ্যা গার্ডিয়ান পত্রিকার স্ক্রিনশট যেখানে বেনেডেট্টির ভুয়া টুইটের শিকার হওয়া ৫ জন ব্যক্তির নাম
দ্যা গার্ডিয়ানে প্রকাশিত টমাসো বেনেডেট্টিকে নিয়ে প্রকাশিত প্রতিবেদনের স্ক্রিনশট

Conclusion

সুতরাং, অমর্ত্য সেনের মৃত্যুর খবরটি স্রেফ গুজব।

Result: False

Our Sources: 
Conversation with Antara Sen, daughter of Prof Amartya Sen
Conversation with Soumik Mukherjee, administrative officer, Pratichi trust
Tweet by Nandana Sen, dated October 10, 2023


LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular