শনিবার, মে 25, 2024
শনিবার, মে 25, 2024

HomeFact CheckFact check: আল-আকসার ইমামের নামে ছড়ালো বিভ্রান্তি

Fact check: আল-আকসার ইমামের নামে ছড়ালো বিভ্রান্তি

Claim- ‘আল-আকসা মসজিদের ইমামকে মেরে ফেলেছে ইজরায়েলিরা। ফিলিস্তিনিরা তার মৃতদেহ বহন করে নিয়ে যাচ্ছে।’
Fact- ‘বহনকৃত মৃতদেহটি আল-আকসার ইমামের নয়। বরং এটি ফিলিস্তিনের বিদ্রোহী দলের কমান্ডার ইব্রাহিম আল নাবুলসির।’

‘আল আকসার ইমামকে মেরে ফেলেছে ইজরায়েলি বাহিনীরা’ শিরোনামে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি ভিডিও সম্প্রতি ভাইরাল হয়। দেখুন এখানে- টিকটক, টিকটক, টিকটক, টিকটক, ফেসবুক, ফেসবুক। পোস্টগুলোর স্ক্রিনশট দেখুন এখানে- 

নিউজচেকার-বাংলাদেশ দাবিটির সত্যতা যাচাই করে দেখেছে যে দাবিটি মিথ্যা।

Fact check/ Verification

গুগল কি-ওয়ার্ড ও রিভার্স ইমেজ সার্চ এর সাহায্যে ভিডিওটি অনুসন্ধান করে জানা যায়, ফিলিস্তিনিদের কাধে বহনকৃত মৃত দেহটি আল-আকসার কোন ইমামের নয়। বরং এটি আল আকসা ব্রিগেড কমান্ডার ইব্রাহিম আল নাবুলসির মৃত দেহ। এই সংক্রান্ত প্রতিবেদন দেখুন এখানে- আল জাজিরা, হারেৎজ, বিবিসি

হারেৎজ-এর প্রতিবেদনের স্ক্রিনশট। ক্যাপশনে লিখা আছে ’শোকাহতরা আল-আকসা মার্টায়ার ব্রিগেড এর কমান্ডার ইব্রাহিম নাবুলসি’র মৃত দেহ বহন করে নিয়ে যাচ্ছে।’

প্রতিবেদনগুলো অনুযায়ী গত বছর ৯ই আগস্ট ইজরায়েলি বাহিনীর একটি অপারেশনে নিহত হন ইব্রাহিম আল নাবুলসি। নাবুলসি জেরুজালেমের পশ্চিম তীর নিয়ন্ত্রণকারী সংগঠন আল আকসা মার্টায়ার ব্রিগেডের একজন তরুণ কমান্ডার ছিলেন। তার সাথে আরও দু’ জন সহযোদ্ধা মারা যান এবং অন্তত পক্ষে ৪০ জন নিহত হয়। এই সংগঠনটি ফিলিস্তিনের ফাতাহ আন্দলোনের সশস্ত্র বাহিনী হিসেবে পরিচিত। এর আগে একই বছরের ফেব্রুয়ারিতে তার আরও তিন জন সহযোদ্ধাকে হত্যা করে ইজরায়েলি বাহিনী। 

ইজরায়েলি বাহিনী ইব্রাহিম আল নাবুলসি’র বিরুদ্ধে পশ্চিম তীরের ইজরায়েলিদের উপর একাধিক হামলা ও আক্রমণের অভিযোগ এনে এই অভিযান চালায়। 

অতঃপর তার মরদেহ নিয়ে ফিলিস্তিনিরা নাবলুস শহরে মিছিল করে।   

এএফপি’র ইউটিউব চ্যানেলে মূল ভিডিওটি আপ্লোড করা হয়। 

Conclusion

সুতরাং, কাধে বহন করা মৃত দেহটি আল আকসার কোন ইমামের নয়। এটি আল-আকসা মার্টায়ার ব্রিগেডের কমান্ডার ইব্রাহিম আল নাবুলসি’র মৃত দেহ।

Result: False

Our Sources:
এএফপি’র ইউটিউব চ্যানেলে  – Main video source
আল জাজিরা, হারেৎজ, বিবিসি – Reports on killing of Ibrahim Al Nabulsi.

  


LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular